বুধবার ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ধনেপাতার ৭ অসাধারণ গুণ

নিউজটি শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্ক:

ধনেপাতা শুধু রান্নার স্বাদ বাড়ায় তা নয়। এর রয়েছে নানাবিধ গুণ। আসুন জেনে নেওয়া যাক ধনেপাতার কয়েকটি গুণ।

১। লিভার বা যকৃতকে সুস্থ রাখতে ধনেপাতা অত্যন্ত কার্যকরী একটি ভেসজ উপাদান। নিয়মিত নির্দিষ্ট পরিমাণে ধনেপাতা খেতে পারলে লিভারের একাধিক সমস্যা থেকে দূরে থাকা যায়।

২। দাঁত ও মাড়ির সুস্থতায় ধনেপাতা অত্যন্ত কার্যকরী একটি ভেসজ উপাদান। ধনেপাতা দাঁতের ফাঁকে ব্যাক্টেরিয়াকে বাসা বাঁধতে বাধা দেয়। ফলে সুস্থ থাকে দাঁত ও মাড়ি।

৩। ধনেপাতায় থাকা আয়রন রক্তাল্পতা রোধে সাহায্য করে।

৪। ধনেপাতার মধ্যে অ্যান্টিসেপটিক উপাদান থাকায় তা শরীরে টক্সিন দূর করতেও সাহায্য করে। এর অ্যান্টিফাঙ্গাল এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট উপাদান বিভিন্ন চর্মরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

৫। ধনেপাতার মধ্যে সিনিওল এসেনশিয়াল অয়েল এবং লিনোলিক অ্যাসিড থাকে। এগুলো শরীরের পুরনো ও নাছোড় ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

৬। ধনেপাতা রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

৭। ডায়াবিটিসে আক্রান্তদের জন্য ধনেপাতা অত্যন্ত উপকারী। ধনেপাতা রক্তে ইনসুলিনের ভারসাম্য বজায় রাখে আর রক্তে শর্করার পরিমাণও নিয়ন্ত্রণে রাখে।

এই বিভাগের আরও খবর

কলেরা টিকার দ্বিতীয় ডোজ আজ থেকে শুরু

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর পাঁচ এলাকায় আজ বুধবার থেকে কলেরা-ডায়রিয়া টিকার দ্বিতীয় ডোজ খাওয়ানো কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এলাকা পাঁচটি হলো যাত্রাবাড়ী, সবুজবাগ, দক্ষিণখান, মিরপুর

পানি পান করার সুন্নত

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে চলছে তীব্র দাবদাহ। এই তীব্র গরমে সুস্থ থাকতে চিকিৎসকরা পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করার পরামর্শ দিচ্ছেন। পানি পান করার সময়

গরমকালের পুষ্টিকারী ফল, যা শরীরের জন্য উপকারী

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্ক: ডাবের পানি, আনারস, পেঁপে, আম-কাঁঠাল, কমলা লেবু, বেল, পেয়ারা, আঙুর—হরেক ফলে বাজার এখন রমরমা। গরমকালের প্রতিটি ফলের রয়েছে পুষ্টিগুণ, যা শরীরের

গরমের তীব্রতা নিয়ে হাদিসের ব্যাখ্যা

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্ক শীত ও গ্রীষ্মের ব্যাপারে হাদিসের ব্যাখ্যা হলো, শীত ও গ্রীষ্মের তীব্রতা আসে জাহান্নামের নিঃশ্বাস থেকে। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল

কোরবানির পশুর গোশত ও চামড়ার বিধান

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্ক: কোরবানির পশুর গোশত নিজে খাবে, নিজের পরিবারকে খাওয়াবে, আত্মীয়-স্বজনকে হাদিয়ে দেবে এবং গরিব-মিসকিনকে সাদকা করবে। গোশত বিতরণের মুস্তাহাব পদ্ধতি হলো তিন

যাদের ওপর কোরবানি ওয়াজিব

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুনঅনলাইন ডেস্কঃ কোরবানি একটি গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক ইবাদত। সামর্থ্যবান নর-নারীর ওপর যা ওয়াজিব। শরিয়তের ভাষায় সামর্থ্যবান বলা হয় যার নিসাব পরিমাণ সম্পদ আছে। নিম্নে

%d bloggers like this: